রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

First Youth News Portal in Bangladesh

add 468*60

শিরোনাম

ভিন্ন রঙে আঁকা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের গুরুত্ব ও এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আত্মহত্যা সমাধান নয় যেভাবে প্রাণের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে দেখতে চাই অত:পর, কোন একদিন...... দ্রুত ওজন কমানোর কিছু কৌশল জাপানের সুমিতমো বৃত্তি পেল ঢাবির ৪০ শিক্ষার্থী চীন যাচ্ছে ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি (আইএমটি) বাগেরহাটের ১০ শিক্ষার্থী ইন্টারনেট ও তরুণ প্রজন্ম জাপান সরকার দিচ্ছে মেক্সট স্কলারশিপ উচ্চ মাধ্যমিকের পর ক্যারিয়ার পরিকল্পনা মাসের খরচের টাকা বাঁচিয়ে ব্যতিক্রম লাইব্রেরি চালান রাজশাহীর বদর উদ্দিন ঢাকায় প্রথম পিআর অ্যান্ড ব্র্যান্ড কমস সামিট ২৬ অক্টোবর রাজনীতি-ক্ষমতা ও তারুণ্য গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র ও তারুণ্য

উচ্চ মাধ্যমিকের পর ক্যারিয়ার পরিকল্পনা

নূর-আল-আহাদ

এইচএসসি এবং সমমানের পরীক্ষার ফলাফল বের হয়েছে সম্প্রতি। যারা আশানুরূপ ফলাফল করতে পেরেছেন তাদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন। আর যারা আশানুরূপ ফলাফল করতে পারেননি, তাদের জন্য অনেক শুভকামনা। মনে রাখবেন, নিয়মিত চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া মানুষ কোনোদিন নিরাশ হয় না। কারণ সফলতা একদিন না একদিন তার কাছে এসে ধরা দেয়। এইচএসসি’র পর আসলে কি করা যেতে পারে কিংবা কি করলে ভালো হয় এই নিয়ে আমাদের অনেকের কাছেই ভালো তথ্য নেই।

আবার আমাদের অনেকের অনেক কিছুই রয়েছে অজানা। আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে এইচএসসি'র আপনি এই পাঁচটি পথের মধ্যে যে কোনো একটি পথ বাছাই করে নিতে পারেন— ১. দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি পরীক্ষা দেয়া কিংবা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া। ২. দেশের বাইরে বৃত্তি নিয়ে পড়াশোনার জন্য যাওয়া। ৩. দেশে বিভিন্ন রকমের প্রফেশনাল ডিগ্রী নিয়ে পড়াশোনা করা। ৪. দেশের সামরিক বাহিনীগুলোতে আবেদন করা। ৫. দেশের বাইরে কম খরচে পড়াশোনা।

পথগুলোর বিস্তারিত আলোচনা: ১. এইচএসসি’র আমাদের দেশের অধিকাংশ শিক্ষার্থী যা করে তা হলো দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তির জন্য পরীক্ষা দেয়া। যারা এই প্রক্রিয়ার সফল হন, তারা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়াশোনা শুরু করেন। আর যারা সফল হন না কিংবা যারা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে চান তারা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি হয়ে থাকেন।

কিন্তু এই দুটি অপশন ছাড়াও যে আরো অনেক অপশন আমাদের রয়েছে, অধিকাংশ ছাত্র-ছাত্রীর তা অজানা। দেশের সরকারি এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যায়গুলোর তালিকা জানতে এই লিংকগুলোতে দেখতে পারেন- http://www.ugc-universities.gov.bd/home/university/public/120 http://www.ugc-universities.gov.bd/home/university/private/75

২. দ্বিতীয় কিন্তু সবচেয়ে ভালো পথ হলো পড়াশোনা জন্য দেশের বাইরে যাওয়া। অনেকেই মনে করতে পারেন, কলেজ জীবন শেষ করার পর বাইরে পড়তে যাওয়া কতটা যুক্তিযুক্ত। আসলে জীবনে ভালো কিছু করতে হলে এখন থেকেই বড় চিন্তা করতে হবে। আর আমাদের দেশ থেকে এইচএসসি’র পর বাইরে পড়তে হলে বেশকিছু ফুল স্কলারশিপ আছে (ফুল স্কলারশিপ মানে আপনার ফুল টিউশন ফী এবং মাসিক চলাফেরার খরচ- এই বৃত্তিগুলোর আওতায় বহন করা হবে। ক্ষেত্র বিশেষে আপনার প্লেন ফেয়ারও বহন করা হতে পারে)। এই ফুল স্কলারশিপগুলো দেখতে পারেন - ইন্ডিয়ান গভর্নমেন্ট বৃত্তি: এই বৃত্তির সার্কুলার সাধারণত ডিসেম্বর থেকে সর্বোচ্চ মার্চ এর মধ্যে হয়ে থাকে। ইন্ডিয়ান এ্যাম্বেসি ঢাকার ওয়েবসাইটে সার্কুলার পাবেন। এছাড়াও দৈনিক পত্রিকাগুলোতেও এর সার্কুলার পাবেন। এই বৃত্তিতে আবেদনের জন্য IELTS প্রয়োজন নেই।

ইন্ডিয়ান গভর্নমেন্টের বৃত্তির জন্য এই লিংকগুলো দেখতে পারেন– https://www.hcidhaka.gov.in/index http://a2ascholarships.iccr.gov.in/

রোমানিয়ান গভর্নমেন্ট বৃত্তি: এই বৃত্তির সার্কুলার পাবেন এই ওয়েবসাইটে– https://www.mae.ro/en/node/10251

তুর্কি গভর্নমেন্ট বৃত্তি: এই বৃত্তির সার্কুলার পাবেন এই ওয়েবসাইটে– https://turkiyeburslari.gov.tr/en/page/prospective-students/scholarship-programs

হাঙ্গেরি গভর্নমেন্ট বৃত্তি: এই বৃত্তির সার্কুলার পাবেন এই ওয়েবসাইটে– https://apply.stipendiumhungaricum.hu/

চাইনিজ গভর্নমেন্ট বৃত্তি: চাইনিজ গভর্নমেন্ট বৃত্তিতে আপনি দুভাবে আবেদন করতে পারেন- আমাদের দেশের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এবং সরাসরি চাইনিজ ভার্সিটিগুলোতে। তবে সরাসরি ভার্সিটিতে আবেদনের ক্ষেত্রে আপনি তিনটির বেশি ভার্সিটিতে আবেদন করতে পারবেন না। চাইনিজ গভর্নমেন্টের বৃত্তির জন্য এই লিংকগুলো দেখতে পারেন– http://www.campuschina.org/content/details3_74775।html http://www.campuschina.org/content/details3_74779।html

জাপানিজ গভর্নমেন্ট বৃত্তি: এই বৃত্তিতে আবেদন করতে হবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে। প্রতিবছর এপ্রিল থেকে মে এর মধ্যে এই বৃত্তির সার্কুলার হয়। সাধারণত ডাবল জিপিএ ৫ যাদের রয়েছে তাদের এই বৃত্তির সম্ভাবনা বেশি। এই বৃত্তির সার্কুলার পাবেন এই ওয়েবসাইটে– http://www.shed.gov.bd/site/view/scholarship

রাশিয়ান গভর্নমেন্ট বৃত্তি: এই বৃত্তির জন্য এই লিংকে দেখতে পারেন- https://studyinrussia.ru/en/study-in-russia/scholarships/ এখানে বলে রাখা ভালো যে, এই বছরে এই বৃত্তিগুলোতে আবেদনের জন্য আর সুযোগ নেই। আগামী বছর আবেদন করতে পারবেন। তবে লিংকগুলো অগ্রিম দিয়ে রাখলাম যেন বৃত্তিগুলো সম্পর্কে কিছুটা ধারণা নিজ থেকে নিতে পারেন। কোনো এজেন্টের সাহায্য নেয়ার দরকার নেই এই বৃত্তিগুলোতে আবেদনের ক্ষেত্রে। এগুলোর বাইরেও আরো বেশকিছু বৃত্তি রয়েছে, যেগুলো সাধারণত ফুল বৃত্তি নয়। সবকিছু বিবেচনায় ফুল বৃত্তিগুলোর কথাই উল্লেখ করা হলো। বাইরে পড়াশোনার প্রস্তুতির নিয়ে আমার টাইম লাইনে আমি নিয়মিত লিখালিখি করে থাকি। আপনি চাইলে ওই পোস্টগুলোও দেখতে পারেন।

৩. আপনি চাইলে ১ এবং ২ পথে না গিয়ে দেশে বিভিন্ন প্রফেশনাল ডিগ্রীগুলো পড়তে পারেন। আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে এই ডিগ্রীগুলোর অনেক ডিমান্ড রয়েছে। এই রকম বেশকিছু ডিগ্রী হচ্ছে ACCA, CMA, CA, CMA ইত্যাদি। ACCA (UK) এর জন্য এই লিংক দেখতে পারেন – https://www.lcbsdhaka.com। CA (ICAB) এর জন্য এই লিংকে দেখতে পারেন - http://www.icab.org.bd/icabweb/webGeneralContent/view/123468 CMA (ICMAB) এর জন্য এই লিংকে দেখতে পারেন - http://www.icmab.org.bd/ CIMA (UK) এর জন্য এই লিংকে দেখতে পারেন– https://www.lcbsdhaka.com/course-category/cima-cba-level/ আবার যারা Bar at Law পড়তে চান তারা এই লিংকগুলোতে দেখতে পারেন – http://bslbd.com/, http://bhuiyanacademyedu.com/

৪. আবার আপনি চাইলে দেশের সামরিক বাহিনীগুলোতে ভালো পোস্টে জয়েনও করতে পারেন। এজন্য নিচের লিংকগুলো দেখতে পারেন- https://www.army.mil.bd/Job-Circulation-List http://www.joinbangladeshairforce.mil.bd https://www.joinnavy.mil.bd/ পরিশেষে, কলেজ জীবন শেষ করার পর আজকের দিনে সবচেয়ে ভালো বুদ্ধি হচ্ছে দেশের বাইরে পড়াশোনা করতে যাওয়া।

৫. এছাড়াও যাদের মোটামুটি আর্থিক সঙ্গতি ভালো, তারা ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ব্যবসায় রিলেটেড বিষয়গুলো নিয়ে একদম কম খরচে মালয়েশিয়ার এই পাবলিক ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনা করতে পারবেন । Main Link - (https://www.unimap.edu.my/index.php/en/) Link for Tution Fees -( https://www.unimap.edu.my/images/PDF/INTERNATIONAL-Tuition-Fees-SummaryUSD2018.pdf) List of Bachelor Degrees – (https://www.unimap.edu.my/images/kemasukan/2019-UniMAP-INTERNATIONAL-List-of-Programmes.pdf) এই বিশ্ববিদ্যালয়টি আবার QS Top Universities 2020 রাংকিং অনুযায়ী বিশ্বের সেরা ৭০০-৭৫০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে রয়েছে ।

মালয়েশিয়ার এই (University Malaysia Perlis) বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ব্যবসায়ের রিলেটেড বিষয় নিয়ে ব্যাচেলর করতে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা এবং ইঞ্জিনিয়ারিং রিলেটেড বিষয় নিয়ে ব্যাচেলর করতে প্রায় ৭ লক্ষ টাকার মতো পড়বে ।

যদি বাইরে যাবার অভিপ্রায় আপনার না থাকে তাহলে আপনি প্রফেশনাল ডিগ্রী নিয়ে পড়াশোনা করতে পারেন কিংবা সামরিক বাহিনীতে কমিশনড পোস্টগুলোতে চেষ্টা করে দেখতে পারেন। পরিশেষে আপনি চাইলে পাবলিক কিংবা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাচেলর ডিগ্রীর জন্য পড়াশোনা করতে পারেন। ‘‘জীবনে ব্যতিক্রমধর্মী কিছু করতে চেষ্টা করবেন তাহলেই সমাজ এমনকি পুরো পৃথিবী আপনাকে মনে রাখবে।’’ সবার সাফল্য কামনা করছি। ভালো থাকুন, নিরাপদে থাকুন। আর অন্যায়কে সর্বদা না বলুন। একে অন্যের সাহায্য করুন।